দিল্লি-১
গোয়া- ০
সেমিফাইনালের প্রথম ধাপটা পেরিয়ে গেল দিল্লি। দিল্লির জওহরলাল নেহেরু স্টেডিয়ামে রবিন সিং করা গোলে ১-০ গোয়াকে হারিয়ে জয় দিল্লির। ৪-৪-১-১ ফর্মেসানে সাজিয়ে ছিলেন কার্লোস। এই ভাবে দল সাজিয়ে ৩ পয়েন্ট আনতে চেয়েছিলেন কোচ। আর সেটাই হল।
প্রথম থেকেই দিল্লি খেলাকে নিজেদের আধিপত্তে আনতে চেয়েছিল। ৪ মিনিটের মাথায় প্রথম সুযোগ আসে সান্তোসের পায়ে। নারায়ন দাসের অসাধারণ ক্লিয়ারেন্স খেলাকে আরও উজ্জিবিত করে। দস সান্তোস এই ম্যাচে গোয়ার  ডিফেন্সে বারবার আঘাত হেনেছে। কিন্তু গোয়াও একটু জায়গা ছাড়তে নারাজ ছিল। কিন্তু হঠাৎই রক্ষনের বেড়া জাল টপকে ৪২ মিনিটের মাথায় আসে ভারতীয় ফুটবলার রবিন সিং এর  একমাত্র গোল। তিনি যে ভাবে বিশ্বমানের স্টপার লুসিওর মাথা টপকে হেডটি করেন তা মনে রাখার মত।
এই ম্যাচে গোয়ার ডিফেন্স আর মাঝমাঠের বেশ কিছু সমস্যা নিশ্চয় ছিল। আর তা বারবার চোখেও পড়েছে। এই সময় এসে দলের ডিফেন্স আর মাঝমাঠ যদি নড়বরে হয়ে পরে তাহলে তা দলের জন্য ভাল কথা নয়। হাতে যদিও আরও একটা ম্যাচ আছে। কিন্তু দলে চোট আঘাত থাবা বসিয়েছে।  রেইনালদো ও রাজু গায়কোয়ারের চোট। জিকো নিশ্চয় চিন্তায় থাকবেন। দিল্লির সঙ্গে এই ম্যাচে গোয়ার আক্রমণও যে খুব ছিল তা নয়। ৭৪ মিনিটের মাথায় একটা টার্গেট লক্ষ্য করা গেছিল যদিও তা গোলে রুপান্তরিত হয়নি। কোচ নিশ্চয় পরের ম্যাচ নিয়ে নতুন কিছু ভাববেন।
গোয়ার হাতে আরও একটা সুযোগ আছে। কোচ জিকো বলেন ” আমি মনে করিনা এটা হার। কেননা খেলা ১৮০ মিনিটের। ৯০ মিনিট এখনও আমদের হাতে। আশা করি পরের ম্যাচে এই এক গোলের ফারাক আমরা মেটাতে পারব”।  তবে সেমিফাইনালের এই স্তেজে এসে এক গোলের ফারাকও অনেকটা এগিয়ে রাখে দলকে। এবার দেখার পালা পরের ম্যাচে দিল্লি এগিয়ে যেতে পারে নাকি লীগ শীর্ষে থাকা গোয়া পিছিয়ে থেকেও সামনে চলে যাবে।